সৈয়দ মাহবুব হাসান আমিরী

আইসিটি বিভাগ, ঢাকা রেসিডেনসিয়াল মডেল কলেজ

শিক্ষা

অধিক শিক্ষার্থী সম্বলিত শ্রেণী ব্যবস্থাপনায় সমস্যা ও সমাধানের উপায়

শ্রেণীতে শিক্ষার্থীর সংখ্যা অধিক হলে শ্রেণী পাঠদান কার্যক্রম স্বাভাবিক ভাবেই কিছুটা ব্যহত হয়ে থাকে। তবে বিশেষ কৌশল অনুসরনের মাধ্যমে অধিক শিক্ষার্থী সম্বলিত শ্রেণীতেও অংশগ্রহনমূলক পদ্ধতিতে পাঠদান কার্যক্রম পরিচালনা করে সেসকল সমস্যার সমাধান করা সম্ভব।

অধিক শিক্ষার্থী সম্বলিত শ্রেণীকক্ষ ব্যবস্থাপনার নিম্নরূপ সমস্যা সমূহ দেখা যায়ঃ
ক) ছোট আকৃতির উপকরন চার্ট মডেল শ্রেণীকক্ষে ব্যবহার করা যায় না।
খ) শ্রেণীকক্ষে কোলাহলপূর্ণ পরিবেশ সৃষ্টি হয় এবং শ্রেণী শৃংখলা বজায় রাখা সম্ভব হয় না।
গ) পাঠে সকল শিক্ষার্থীর অংশ গ্রহন অনিশ্চিত হয়ে পড়ে।
ঘ) পিছনে বসা শিক্ষার্থীরা ঠিকমতো শুনতে পায় না- ফলে অমনোযোগী হয়ে পড়ে।
ঙ) শিক্ষক সকল শিক্ষার্থীর প্রতি সমান নজর দেয়া যায় না।
চ) শ্রেণীকক্ষের নিয়মানুবর্তিতা ঠিকমতো অনুসরণ করা যায় না।
ছ) দলীয় কোন কাজ করতে দেয়া যায় না জায়গা স্বল্পতার জন্য।

 

অধিক শিক্ষার্থী সম্বলিত শ্রেণীকক্ষের বাধা সমূহ উত্তোরনের উপায়ঃ
অধিক সংখ্যক শিক্ষার্থী শ্রেণীকক্ষ ব্যবস্থাপনার প্রধান বাধা। তবে বিশেষ কৌশল অবলম্বনে এই বাধা সমূহ দূর করা যেতে পারে।

ক) উপযোগী পদ্ধতি ও কলাকৌশলঃ একক ভাবে ও জোড়ায় অংশগ্রহনমূলক পদ্ধতির নিম্নরূপ কৌশল গুলো ব্যবহার করা, যেমন-

  • ব্রেইন স্টর্মিং,
  • মাইন্ড ম্যাপিং,
  • অনুক্রম সাজানো,
  • তুলনাকরন,
  • সুবিধা অসুবিধা উল্লেখ,
  • তালিকা প্রস্তুত করন, প্রভৃতি।

খ) দলগত কাজ দেবার ক্ষেত্রে প্রতি দুই সারির পর ফাকা জায়গা রাখা। এবং ঐ দুই সারির শিক্ষার্থীকে মুখোমুখি বসানো।  এতে শিক্ষক  প্রত্যেক শিক্ষার্থীর কাছে  যাবার সুযোগ পাবেন এবং শ্রেণীর কাজ পর্যবেক্ষন সুবিধা জনক হবে।

গ) শ্রেণীতে দীর্ঘ বক্তৃতা না রেখে মাঝে মাঝে সংক্ষিপ্ত বক্তৃতা রাখা যেতে পারে। শিক্ষার্থীদের প্রতিটি পাঠের পূর্বে সংক্ষিপ্ত বক্তৃতার মাধ্যমে ঐ কাজের মূলকথা তুলে ধরা যেতে পারে এবং পাশাপাশি প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দেওয়া যেতে পারে।

সময় ব্যবস্থাপনা

শিক্ষক কোন কার্যক্রমের জন্য কতটুকু সময় কীভাবে ব্যয় করবেন তার পরিকল্পনাই হচ্ছে সময় ব্যবস্থাপনা।

পাঠটীকা ব্যবস্থাপনা

পাঠটীকায় শিক্ষক যে পদ্ধতি ও কলাকৌশল উল্লেখ করেছেন তার সার্বিক ব্যবহার নির্বাচিত উদ্দেশ্যের সাথে সম্পৃক্ত কার্যাবলীর যথাযথ আয়োজন। পূর্ব নির্ধারিত শিক্ষক ও শিক্ষার্থীর কাজের ব্যবস্থাপনা- পাঠটীকা ব্যবস্থাপনার অংশ।

ব্লাক/হোয়াইট বোর্ড ব্যবস্থাপনা 

শ্রেণীতে শিক্ষক একটি নির্দিষ্ট ধারাক্রমানুসারে তথ্য সমূহ বোর্ডের নির্দিষ্ট স্থানে লিখে থাকেন, নির্দিষ্ট সময়ে বোর্ড পরিষ্কার করেন, নির্দিষ্ট নিয়মে বোর্ডের কাজগুলো করে থাকেন- এ জাতীয় ব্যবস্থাপনাই বোর্ড ব্যবস্থাপনার অংশ।

উপযুক্ত কন্ঠস্বর

শিক্ষক শ্রেণী কার্যক্রম পরিচালনা করার যে কথা সমূহ বলে থাকেন, তা শ্রেণী ও কক্ষ অনুযায়ী হওয়া উচিৎ।

এছাড়াও শ্রেণীকক্ষের উপযুক্তকতা, শিক্ষার্থীদের আসন ব্যবস্থা, শিক্ষকের অবস্থান, অংশগ্রহনমূলক পাঠদান পদ্ধতি অনুসরন, শিক্ষার্থীদের কর্মতৎপরতা, শিক্ষার্থীদের আগ্রহ ও মনোযোগ বৃদ্ধিতে ওপষনা সৃষ্টি, প্রভৃতি বিষয় শ্রেণী ব্যবস্থাপনার সাথে জড়িত।

LEAVE A RESPONSE

Your email address will not be published. Required fields are marked *