সৈয়দ মাহবুব হাসান আমিরী

আইসিটি বিভাগ, ঢাকা রেসিডেনসিয়াল মডেল কলেজ

গবেষণা

গবেষকের অনুসরণীয় নীতিমালা

Kemmis and McTaggart (1981) গবেষকের নীতিমালার একটি ধারণা দিয়েছেন। নিম্নে তা উল্লেখ করা হল-

১. নিয়মতান্ত্রিক পর্যবেক্ষণ: এজন্য সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিবর্গ, কমিটি, কর্তৃপক্ষের সঙ্গে পরামর্শ গ্রহণ, তথ্য সংগ্রহ এবং অনুমোদন গ্রহণে বিশেষ যত্নবান হতে হয়।

২. অংশগ্রহণকারীদের নিযুক্তি: এতে অন্যকে নিজের মত কর্মে ব্যাপৃত রাখা হয়।

৩. প্রভাবিতদের সঙ্গে সমঝোতা: এ ধরনের গবেষণা কর্মে প্রত্যেকে প্রত্যক্ষ বা সরাসরি সম্পৃক্ত হবে না তাই কর্মকান্ড দায়িত্ব অর্পণের মাধ্যমে সম্পন্ন করতে হয়।

৪. প্রতিবেদনের উন্নয়ন সাধন: এতে দর্শনযোগ্য উন্মুক্ত মতামতের সুযোগ রক্ষা করতে হয়, যাতে পূর্বে ভুলে যাওয়া বা সহকর্মীদের প্রতিবাদের সুযোগ পায়।

৫. যথাযথ কর্তৃপক্ষের অনুমোদন গ্রহণ: পেশাদার সহকর্মী বা অন্যান্যদের কর্মকান্ড সংরক্ষণে শিক্ষণ শিখনে ইতিবাচক মনোভাব থাকতে হবে।

৬. নথি, চিঠিপত্র বা অন্যান্য ডকুমেন্ট পর্যবেক্ষণের সময় যথাযথ কর্তৃপক্ষের অনুমোদন গ্রহণ: এ সবের অনুলিপি যথাযথ কর্তৃপক্ষের অনুমোদন সাপেক্ষে নেয়া যাবে।

৭. কর্ম তৎপরতার বিবৃতি প্রদান: নিজ কর্মের নিরপেক্ষতা; যথার্থতা ও নিপুণতা রক্ষায় এমনকি ঝুকিঁ মোকাবেলায় তৎপর হতে হবে।

৮. অন্যের মতামত বিবেচনায় আনা: নিরপেক্ষতা, যথার্থতা ও নৈপুন্যতা বজায় রাখতে সভা ও মত বিনিময়ে সর্বদা লিখিত পূর্ব অনুমতি নিতে হবে।

৯. উদ্ধৃতি ব্যবহারের পূর্বে অনুমতি গ্রহণ: লিখিত বা সভার কোন ঘটনা অডিও-ভিডিও, সিদ্ধান্ত, মূল্যায়ন, পর্যবেক্ষণ প্রভৃতি ব্যবহারের পূর্বে অনুমতি গ্রহণ করতে হবে।

১০. প্রতিবেদন প্রকাশের অনুমোদন: বিভিন্ন ধরণের শ্রোতার নানারকম চাহিদা বিবেচনায় রেখে যথাযথ প্রাসঙ্গিক মৌখিক বা আনুষ্ঠানিক প্রতিবেদন, জার্নাল, পত্রিকা, নিউজলেটার প্রভৃতি বিতরণের পূর্বে অনুমোদন নিতে হবে।

১১. গোপনীয়তা রক্ষায় দায়িত্ব পালন: নিরপেক্ষতা, যথার্থতা ও প্রাসঙ্গিকতা বজায় রাখতে হবে। গোপনীয়তা রক্ষার্থে অযথা হয়রানি, অত্যুক্তি, অনাকাঙ্ক্ষিত বিষয়াদি পরিষ্কার করতে হবে।

১২. নীতিমালা বন্ধন রক্ষা ও অবহিতকরণ: গবেষণা কর্মে নিযুক্ত হওয়ার পূর্বে নীতিমালা অনুসরণে রাজী থাকতে হবে। অন্যদের এ বিষয়ে তাদের স্বীয় অধিকার সম্পর্কে সচেতন থাকতে হবে।

তথ্যসূত্রঃ
১. ডঃ শাহজাহান তপন – থিসিস ও আ্যাসাইনমেন্ট লিখন
২. আলিম আল আইয়ুব আহমেদ – শিক্ষায় গবেষণা পদ্ধতি
৩. আহসান হাবিব – কর্মসহায়ক গবেষণা
৪. মোঃ গোলাম ফারুক – কর্মসহায়ক গবেষণা
৫. জিনাত জামান – শিক্ষা গবেষণা ও কৌশল
৬. মলয় কুমার সাহা – কর্মসহায়ক গবেষণা
৭. বিভিন্ন জার্নাল ও ব্লগ